সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ চাই

- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে তরুণ প্রজন্মই জাতির প্রাণশক্তি ও সমাজ পরিবর্তনের হাতিয়ার। তরুণ ছাত্রসমাজ জাতির পিতার চেতনায় ও উদ্যমে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশ গঠনের কাজে আত্মনিয়োগ করলে গড়ে উঠবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ। ছাত্রসমাজের ক্রীড়া ও বিনোদনের মঞ্চ হিসেবে তৃতীয়বারের মত আয়োজিত বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্পোর্টস চ্যাম্প ২০২০ এর এই উদ্যোগ আজকের ছাত্রসমাজের ভবিষ্যৎ নির্মাণে চালিকাশক্তিরূপে ভূমিকা পালন করবে।

বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্পোর্টস চ্যাম্পিয়নশিপ-২০২০

১০

লক্ষ
শিক্ষার্থীর ক্রীড়ামঞ্চ

বাংলাদেশ একদিন বিশ্বকাপ জয় করবে

শিক্ষা, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি চর্চার প্রতিটি ক্ষেত্রে আমাদের তরুণ সমাজ, যুব সমাজ, শিশু সকলেই সম্পৃক্ত হবে এবং নিজেদেরকে সুন্দরভাবে গড়ে তুলবে। খেলাধুলা ও শরীর চর্চার মধ্য দিয়ে আমাদের ছেলেমেয়েদের শারীরিক ও মানসিক শক্তি যেমন বৃদ্ধি পাবে তেমনি বাড়বে মেধা বিকাশের সুযোগ। সেকারণেই আমরা এই উদ্যোগটা নিয়েছি।

– মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

১টি

চ্যাম্পিয়ন বিশ্ববিদ্যালয়

১জন

সেরা পুরুষ ক্রীড়াবিদ

১জন

সেরা নারী ক্রীড়াবিদ

687টি

পদক

২০২০ এ অংশগ্রহণকারী বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ

বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের সর্ববৃহৎ ক্রীড়া আসরের দ্বিতীয় আয়োজন

অংশগ্রহণকারী দেশের সকল পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্য থেকে সর্বোচ্চ স্বর্ণপদক বিজয়ী বিশ্ববিদ্যালয়কে বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্পোর্টস চ্যাম্পিয়নশিপ-২০২০ বিজয়ী ঘোষণা করে এক বছরের জন্য চ্যাম্পিয়ন ট্রফি প্রদান করা হবে।

সর্বোচ্চ স্বর্ণপদক বিজয়ী পুরুষ ক্রীড়াবিদকে বিশ্ববিদ্যালয় সেরা ক্রীড়াবিদ, পুরুষ পদকে ভূষিত করা হবে। সর্বোচ্চ স্বর্ণপদক বিজয়ী নারী ক্রীড়াবিদকে বিশ্ববিদ্যালয় সেরা ক্রীড়াবিদ, নারী পদকে ভূষিত করা হবে।

প্রত্যেক ইভেন্টের সেরা ৩ জন হিসেবে মোট ১২৬ জন বিজয়ী ক্রীড়াবিদকে যথাক্রমে স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ পদকে ভূষিত করে মোট ৬৮৭টি পদক প্রদান করা হবে।

দেশের সরকারী ও বেসরকারী মিলিয়ে মোট ১০১টি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২টি ইভেন্টে অংশগ্রহণে এবারের আসরে ৬৮৭টি পদকের জন্য নারী-পুরুষ মিলিয়ে প্রায় ৬ হাজার শিক্ষার্থী। এর মধ্যে নারী ক্রীড়াবিদ থাকছেন ১২০০ জন। ১২ ডিসিপ্লিনের খেলাগুলো হচ্ছে এ্যাথলেটিক্স, ফুটবল, ক্রিকেট, বাস্কেটবল, টেবিল টেনিস, ব্যাডমিন্টন, ভলিবল, সাইক্লিং, সাঁতার, হ্যান্ডবল, দাবা ও কাবাডি। শেষ দু’টি ডিসিপ্লিন এবারই প্রথম যোগ হয়েছে এই গেমসে। ৬৮৭টি পদকের জন্য ৪২টি ইভেন্ট হবে। এখান থেকে একটি সেরা বিশ্ববিদ্যালয় পাবে সেরার স্বীকৃতি। একজন করে নারী ও পুরুষ হবেন গেমসের সেরা খেলোয়াড়। মোট ১৩টি বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের নিজস্ব ভেন্যুতে দেড় মাসব্যপী চলবে এই গেমস। ১৮ এপ্রিল সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পোলারের পৃষ্ঠপোষকতায় এই গেমসটির সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে স্পেলবাউন্ড লিও বার্নেট।

“সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ চাই” শ্লোগানকে সামনে রেখে আয়োজিত এই চ্যাম্পিয়ন শিপের মূল লক্ষ্য ছিল বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া সকল শিক্ষার্থী কে একই প্ল্যাটফর্মে এনে তাদের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর চেতনা ও দেশ গড়ার প্রত্যয় পৌঁছে দেয়া। আয়োজনটিকে ঘিরে যে পরিমাণ উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে তাতে স্পষ্ট যে বাংলাদেশের তারুণ্য এখনও সুস্থ বিনোদন, দলীয় সহযোগিতার মনোভাব, পারস্পরিক বন্ধুত্ব ও দেশ গড়ার সমস্ত আয়োজনে উদ্যমী। আগামীর বাংলাদেশ গড়তে আজকের এই উদ্যমী তারুণ্যের উপর ভরসা করা যায় চোখ বুজে।কেননা খেলাধুলায় ও বন্ধুত্বে যাদের বসবাস তাদের ধারেকাছে অশুভ কিছু টিকতে পারে না। 

চ্যাম্পিয়নশিপ অংশগ্রহনকারী

প্রতিযোগী বিশ্ববিদ্যালয়

0

হোস্ট বিশ্ববিদ্যালয়

0

খেলোয়াড়

0

পুরুষ খেলোয়াড়

0

নারী খেলোয়াড়

0

হোস্ট বিশ্ববিদ্যালয়

এক নজরে ২০২০ এর চ্যাম্পিয়নশিপ প্রতিযোগিতাসমূহ

ফুটবল

পুরুষ/নারী

ক্রিকেট

পুরুষ/নারী

টেবিল টেনিস

পুরুষ/নারী
(একক/দ্বৈত)

বাস্কেটবল

পুরুষ

ব্যাডমিন্টন

পুরুষ/নারী
(একক/দ্বৈত)

কাবাডি

পুরুষ/নারী

সু্ইমিং

পুরুষ/নারী

হ্যান্ডবল

পুরুষ/নারী

ভলিবল

পুরুষ

সাইক্লিং

পুরুষ/নারী

অ্যাথলেটিক্স

পুরুষ/নারী

দাবা

পুরুষ/নারী

পুরুষ

মহিলা

মিক্সড

পুরুষ

মহিলা

মিক্সড

পুরুষ ম্যারাথন বিজয়ী

স্বর্ণ

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

রৌপ্য

ন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়

ব্রোঞ্জ

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

মহিলা ম্যারাথন বিজয়ী

স্বর্ণ

ন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়

রৌপ্য

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

ব্রোঞ্জ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

পুরুষ সাইক্লিং বিজয়ী

স্বর্ণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

রৌপ্য

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

ব্রোঞ্জ

প্রাইম ইউনিভার্সিটি

মহিলা সাইক্লিং বিজয়ী

স্বর্ণ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

রৌপ্য

গণ বিশ্ববিদ্যালয়

ব্রোঞ্জ

ইস্ট ডেল্টা বিশ্ববিদ্যালয়

পুরুষ ক্রিকেট চূড়ান্ত

করোনা মহামারীর কারনে ১ম রাউন্ডের পর খেলা স্থগিত ঘোষণা করা হয়

মহিলা ক্রিকেট চূড়ান্ত

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত ঘোষণা করা হয়

পুরুষ হ্যান্ডবল চূড়ান্ত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া

মহিলা হ্যান্ডবল চূড়ান্ত

গণ বিশ্ববিদ্যালয়

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

ব্যাডমিন্টন পুরুষ একক

করোনা মহামারীর কারনে ১ম রাউন্ডের পর খেলা স্থগিত ঘোষণা করা হয়

ব্যাডমিন্টন মহিলা একক

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত ঘোষণা করা হয়

ব্যাডমিন্টন মহিলা দ্বৈত

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত ঘোষণা করা হয়

ব্যাডমিন্টন মিক্সড

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত ঘোষণা করা হয়

টেবিল টেনিস পুরুষ একক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

টেবিল টেনিস পুরুষ দ্বৈত

ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

টেবিল টেনিস মহিলা একক

ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ

উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়

টেবিল টেনিস মহিলা দ্বৈত

ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ

টেবিল টেনিস মিক্সড

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত ঘোষণা করা হয়

সুইমিং

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত ঘোষণা করা হয়

পুরুষ ফুটবল চূড়ান্ত

করোনা মহামারীর কারনে ১ম রাউন্ডের পর খেলা স্থগিত ঘোষণা করা হয়

মহিলা ফুটবল চূড়ান্ত

করোনা মহামারীর কারনে ১ম রাউন্ডের পর খেলা স্থগিত ঘোষণা করা হয়

ভলিবল

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত ঘোষণা করা হয়

বাস্কেটবল

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত ঘোষণা করা হয়

এক নজরে ২০২০ এর চ্যাম্পিয়নশিপ প্রতিযোগিতাসমূহের কিছু অংশ

করোনা মহামারী

প্রথম আসরের সাফল্যের ধারাবাহিকতায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিব বর্ষ-কে কেন্দ্র করে তাঁর আদর্শ ও চেতনায় জাতি গঠনে আগামীর তারুণ্যের প্রাণশক্তি ও উদ্দীপনাকে সমুন্নত রাখার প্রত্যয়ে জাতির পিতার বিখ্যাত উক্তি “সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ চাই”কে প্রতিপাদ্য হিসেবে ধারণ করে দ্বিতীয়বারের মত সারাদেশে ব্যাপক আলোড়ন তুলে শুরু হয় “বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্পোর্টস চ্যাম্পিয়নশিপ ২০২০”। প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় আসরে সারাদেশের ১০৪ টি পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৫০০ জন ক্রীড়াবিদ মোট ১২টি ইভেন্ট যুক্ত হয়। তবে অত্যন্ত দূর্ভাগ্যজনকভাবে, করোনা মহামারীর প্রকোপে সমগ্র বিশ্ব যখন স্থবির হয়ে পড়ে এবং এর প্রভাবে সকল বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ বন্ধ ঘোষণা করা হয়, তারই ফলশ্রুতিতে “বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্পোর্টস চ্যাম্পিয়নশিপ ২০২০ সাময়িক স্থগিত ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে প্রতিযোগিতার আয়োজক কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক “বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্পোর্টস চ্যাম্পিয়নশিপ”এর দ্বিতীয় আসরটি বাতিল ঘোষণা করা হয়।